মেয়েদের ওজন কমানোর উপায় ও ডায়েট চার্ট

আজকের পোস্টে আমরা মেয়েদের ওজন কমানোর উপায় জেনে নিব। আপনি  যদি একজন মেয়ে হয়ে থাকেন এবং ঘরোয়া পদ্ধতি তে নিজের ওজন কমাতে চান তাহলে আজকের পোস্টটি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা আজকের পোস্ট এর মাধ্যমে আমরা মেয়েদের ওজন কমানোর বেশ কিছু কার্যকরী উপায় এবং মেয়েদের ডায়েট চার্ট বর্ণনা করা হবে। তাই আপনি যদি নিজেকে সুস্থ রাখতে চান এবং নিজের শারীরিক গঠন সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে চান তাহলে অবশ্যই অবশ্যই সম্পন্ন  পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

আমাদের মধ্যে অনেক মেয়েরাই আছেন যারা তাদের মোটা শরীর নিয়ে অনেক চিন্তিত আছেন।  কিন্তু চিনতে চিন্তিতও হবে কিছু নেই।  সামান্য পরিমাণ কিছু নিয়ম মেনে চললেই আপনি আপনার ওজন কমাতে পারবেন।  আমরা এই পোস্টে মেয়েদের অতি দ্রুত ওজন কমানোর কিছু টিপস এবং মেয়েদের ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট বর্ণনা করেছি।  দয়া করে সম্পূর্ণ পোস্টে মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

মেয়েদের ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট (Diet chart for Girl)

ইন্টারনেটে অনেক মেয়ে মেয়েদের ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট খুঁজে থাকেন।  কিন্তু অনেকেই সঠিক ডায়েট চার্টে খুঁজে পান না।  এর জন্য আমরা আপনাদের সুবিধার্থে এখন মেয়েদের ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট শেয়ার করব।  আপনি যদি যথাযথভাবে এই ডায়েট চার্ট মেনে চলতে পারেন তাহলে অতিদ্রুত আপনার ওজন 10 থেকে 15 কেজি কমাতে পারবেন।  নিচে টেবিল থেকে ওজন কমানোর ডায়েট চার্টে সংগ্রহ করে নিন।

Morning Breakfast:  ওটস বা কনফ্লেক্স, ডিম সিদ্ধ

Before the Lunch:  একটা ফল (তরমুজ / আপেল)

Lunch:  এক বাটি ভাত / দুটো আটার রুটি, ডাল, সবজি অথবা মাছ, রায়তা৷

Evening:  বিকেলে স্যালাড /দই দিয়ে হেলদি চাট

Dinner:  রাতে ১ টা আটার রুটি, হালকা সবজি /স্যুপ।

আপনি যদি এই ডায়েট চার্টে পালন করেন তাহলে আশা করি 15 থেকে 30 দিনের মধ্যে আপনি আপনার শরীরের ওজন কমিয়ে ফেলতে পারবেন।

প্রতি সপ্তাহের হাফ কেজি ওজন কমানোর জন্য ডায়েট চার্ট

অনেকেই শরীরের ওজন নিয়ে বেশ চিন্তিত,  তাই  তারা শর্টকাট উপায় অতি দ্রুত শরীরের ওজন কমাতে চান।  কিন্তু অনেকেই ভেবে পান না কিভাবে শরীরের ওজন কমাবেন। তাই আমরা আপনাদের জন্য একটি পূর্ণাঙ্গ ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট নিয়ে হাজির হয়েছি।  এই ডায়েট চার্ট মেনে চললে আপনি প্রতি সপ্তাহে মানে প্রতিদিন 7 দিনে অন্তত হাফ কেজি ওজন কমাতে পারবেন।  আপনি যদি প্রতি সপ্তাহে হাফ কেজি ওজন কমাতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই এই ডায়েট চার্টে পয়েন্ট-টু-পয়েন্ট মেনে চলতে হবে।  তাহলে চলন ওজন কমানোর ডায়েট চার্টে দেখে নিন।

সকালের নাস্তা :

৪০০ ক্যালরি ( সকাল ৭.৩০ – ৮ টা )

২ টা গমের আটার রুটি অথবা ১ কাপ খিচুড়ি (চাল +ডাল+সবজি মিশানো)।

২ টা কুসুম ছাড়া ডিম খেতে হবে।

১ কাপ পাতা যুক্ত শাক এবং ১/২ কাপ সবজি খেতে হবে।

ঋতুভেদে বাজারে যে ফল পাওয়া যায় তা খেতে হবে ১০০-২০০ গ্রাম।

মধ্য সকালের নাস্তা :

২০০ ক্যালরি (সকাল ১০.৩০ -১১ টা )

বাদাম খেতে হবে খোসা ছাড়া ৩০ গ্রাম।

১ টা বড় কাচা শসা বা ১০০ গ্রাম পাকা পেঁপে।

দুপুরের খাবার :

৬০০ ক্যালরি(১.৩০-২ টা )

দুপুরের খাবারে ভাত খেতে হবে দেড় কাপ পরিমাণ।

১২০ গ্রাম পরিমাণে রান্না করা মাছ অথবা মাংস( ফ্যাট এবং হাড় ছাড়া ওজন করতে হবে ) খেতে হবে।

ডাল খেতে হবে এক কাপ মাঝারি ঘন ডাল।

এক কাপ পাতা যুক্ত শাক এবং দেড় কাপ রান্না করা সবজি খেতে হবে।

বিকালের নাস্তা :

২০০ ক্যালরি (বিকেল ৫.৩০ – ৬ টা)

বিকালের নাস্তায় রান্না করা ছোলা বা বুট ৩০ গ্রাম খেতে হবে।

সিজনাল ফল খেতে হবে দুই সারভিং পরিমাণ।

এক কাপ চা অথবা কফি (চিনি ছাড়া স্কিম মিল্ক দিয়ে তৈরী করা) খেতে হবে।

রাতের খাবার :

৪০০ ক্যালরি ( রাত ৯ টা – ৯.৩০ )

দুইটা গমের আটার রুটি যার ওজন হবে ১০০ গ্রামের মত।

৬০ গ্রাম পরিমাণে রান্না করা মাছ অথবা মাংস খেতে হবে।

এর সাথে এক কাপ পাতা যুক্ত শাক ও এক কাপ রান্না করা সবজি খাবেন।

এখানে সারাদিন আপনি এখন কি খাবেন এবং কী পরিমান খাবেন তার একটি পূর্ণাঙ্গ তালিকা দেওয়া হয়েছে।  আপনাকে অবশ্যই  খাবার তালিকাটি মেনে চলতে হবে।  এছাড়া আপনি সকালে এবং বিকেলে একটু এক্সারসাইজ করতে পারেন।

মেয়েদের দ্রুত ওজন কামানোর ১০টি সহজ উপায়

পোস্টের এই অংশে আমরা মেয়েদের ওজন কমানোর দশটি গুরুত্বপূর্ণ টিপস শেয়ার করব।  আপনি যদি এই টিপসগুলো মেনে চলেন তাহলে আপনার শরীরের ওজন অতি দ্রুত কমিয়ে ফেলতে পারবেন।  দয়া করে অবশ্যই এখানে দেখানো টিপসগুলো মেনে চলুন এবং নিজের শারীরিক গঠন এবং ওজন ঠিক রাখুন।

১। উচ্চ প্রোটিনযুক্ত সকালের নাস্তা খাওয়া এবং ক্যালরি হিসেব করে খাওয়া।

২। মিষ্টি জাতীয় সকল ধরনের পানীয় বর্জন করা এমনকি মিষ্টি জাতীয় ফলের জুসও এড়িয়ে চলা।

৩। প্রতিবার খাবার খাওয়ার ৩০ মিনিট পূর্বে ২ গ্লাস পানি খাওয়া। এটা আপনাকে পরিমিত খেতে সাহায্য করবে।

৪। ওজন কমানোর সহায়ক খাবারগুলো খাওয়া। আমি ওজন কমানোর সহায়ক খাবারের একটা তালিকা খুব শিগ্রি প্রকাশ করব।

৫। সলিউবল ফাইবার বা পানি দিয়ে গুলিয়ে খাওয়া যায় এমন খাবার বেশি বেশি খাওয়া। যেমনঃ ওটমিল

৬। নিয়মিত চা-কফি খাওয়া। তবে ওজন কমানোর চা বা কফি খেলে আরো ভাল।

৭। অরগানিক বা প্রাকৃতিক খাবার। অর্থাৎ যে খাবারটি কোন ধরনের প্রোসেসিং করা হয় নি।

৮। ধীরে ধীরে খান। যারা দ্রুত খায় তাদের ওজন তারাতারি বাড়ে। ধীরে ধীরে খেলে আপনি অল্প খাবারে পেট ভরবে এবং ওজন কমানোর হরমন বৃদ্ধি পাবে।

৯। ছোট প্লেটে খান। গবেষণায় দেখা যাচ্ছে, ছোট প্লেটে খেলে কম খাওয়া হয়। ব্যাপারটি অদ্ভুত হলেও সত্য।

১০। রাতের ঘুমটি ভাল হতে হবে। অনির্দিষ্ট এবং অনিয়মিত ঘুম ওজন বাড়ানোর জন্য মারাত্মক ঝুকির। তাই রাতে একটি ভাল ঘুম অনেক জরুরী

শেষ কথা

আজকের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।  আশা করি আজকের পোষ্টের মাধ্যমে আপনি মেয়েদের সহজে ওজন কমানোর উপায় এবং ডায়েট চার্ট সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। আজকের এই পোস্টটি আপনাদের অনেক ভালো লেগেছে। আশা করি এই পোস্ট থেকে আপনারা অনেক উপকৃত হতে পারবেন।  এই পোস্টের লিংক আপনার বান্ধবীদের সাথে শেয়ার করুন যাতে তারা তাদের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে।  দয়া করে আমাদের সাথেই থাকুন আমরা ভবিষ্যতে আরও সুন্দর সুন্দর পোস্ট নিয়ে আপনাদের মাঝে হাজির হব।

আরও দেখুনঃ

খুব সহজে মেয়েদের প্রেমে ফেলার উপায় জেনে নিন

খুব সহজে মেয়ে পটানোর ডায়লগ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: